শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০   জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭   ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

চট্টলার বার্তা
১৫৬

সেনাবাহিনীর ফ্রি সবজি পেয়ে ১১০০ দুস্থ পরিবারে হাসি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬ মে ২০২০  

কোনো বিশৃঙ্খলা নেই, সুশৃঙ্খল লাইন। সবার মুখে মাস্ক, ঢোকার সময় জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে হাত। এক গেট দিয়ে ঢুকে অন্য গেট দিয়ে বের হচ্ছেন সবাই। ফ্রিতে নিচ্ছেন পছন্দের সবজিসহ নিত্যপণ্য।

এ দৃশ্য আগ্রাবাদ সরকারী কলোনি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের।

শনিবার (১৬ মে) সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত মাত্র দেড় ঘণ্টায় তালিকাভুক্ত ১ হাজার ১০০ দরিদ্র পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

ফ্রিতে খাদ্য সহায়তা পেয়ে দিনমজুর ও হতদরিদ্র এসব পরিবারের অনেককে দুই হাত তুলে সেনাবাহিনীর জন্য দোয়া করতে দেখা গেছে। হুইল চেয়ারে করেও অনেকে এসেছেন সেনাবাহিনীর এ খাদ্য সহায়তা নিতে।

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন দিনমজুর, দরিদ্র মানুষদের তালিকা তৈরি করে সেনাবাহিনী ফ্রি সবজিসহ নিত্যপণ্য দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করে গত ১৩ মে বুধবার।

ওইদিন নগরের ওয়াসা মোডের জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ মাঠে তালিকাভুক্ত এক হাজার পরিবার মাত্র ১ মিনিট অবস্থান করে বিনামূল্যে সবজিসহ নিত্যপণ্য নিয়ে যান।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনসট্রাকশন বিগ্রেডের উদ্যোগে পরিচালিত এ বাজারের জন্য সাতকানিয়া, লোহাগাড়া, সীতাকুণ্ড, রাউজানসহ বিভিন্ন উপজেলার প্রান্তিক কৃষকদের কাছ থেকে ন্যায্য মূল্য প্রথমে সবজি কেনা হয়।

পরে এলাকাভিত্তিক দরিদ্র দিনমজুর পরিবারের তালিকা করে ‘১ মিনিটের বাজার’ এর মাধ্যমে এসব সবজি বিতরণ করা হয়। যে এলাকায় যাদের তালিকা করা হয়, তাদের পাশের কোনো এক সুবিধামতো জায়গায় এ ফ্রি সবজি বাজার বসানো হয়।

সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমেদ তানভির মাজাহার সিদ্দিকী বলেন, আগ্রাবাদের আশপাশের এলাকার হতদরিদ্র ১ হাজার ১০০ পরিবারের তালিকা তৈরি করে এ খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়।

চাল, ডাল, আলু, ঢ্যাড়শ, তিতকরলা, কচুরলতি, শসাসহ আরও কয়েক প্রকারের সবজি। নিত্যপণ্য দেওয়া হয় তাদের। এ কার্যক্রম চট্টগ্রামের প্রতিটি এলাকায় এক মাস চলবে।

চট্টলার বার্তা
চট্টলার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর