বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

চট্টলার বার্তা
৩৩

সাইকেল চালিয়ে তিউনিসিয়ান নারীর ওমরাহ পালন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

আফ্রিকার উত্তরতম দেশ তিউনিসিয়ার নারী সাইক্লিস্ট। তিনি সাইকেল চালিয়ে পবিত্র ওমরাহ পালনে সৌদি আরবের মক্কা নগরীতে পৌঁছেছেন। তিউনিসিয়া থেকে মক্কায় পৌঁছাতে তার সময় লেগেছে ৫৩ দিন, দীর্ঘ এ পথ তিনি একাই পাড়ি দিয়েছেন। যদিও ইসলামের বিধানমতে, কোনো নারীর জন্য একাকী হজ ও ওমরাহ সফরে যাওয়া বৈধ নয়।

সারা হাবা তিউনিসিয়া থেকে সাইকেল চালিয়ে লিবিয়া ও মিসর হয়ে সুদানের মরুভূমি পাড়ি দিয়েছেন। দীর্ঘ যাত্রাপথে তিনি সাইক্লিংটোমেক্কা (#cyclingtomecca) নামক হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেছেন। তিনি যে পথ পাড়ি দিয়েছেন তার নাম ‘মেরজুগা’ (Merzouga)।

আরব নিউজসহ সৌদি আরবের প্রায় মিডিয়ায় সারার এমন কৃতিত্ব নিয়ে রিপোর্ট করেছে

আরব নিউজকে সারা বলেন, আমি আল্লাহর ঘরের (কাবা) উদ্দেশে রওনা হওয়ার পর পথে কোথাও যাত্রাবিরতি দেইনি। আমার ইচ্ছাশক্তিই আমাকে এখানে টেনে এনেছে। সত্যি কথা কী, এত অল্প সময়ে আমি দীর্ঘ এ সফর শেষ করতে পারবো- তা ভাবতেও পারিনি। কিন্তু হয়ে গেছে- আলহামদুলিল্লাহ। আমি ভীষণ খুশি।

সারা প্রতিদিন টানা ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা সাইকেল চালিয়েছেন। যাত্রাপথে একবার তার সাইকেলটি নষ্ট হয়ে যায়। সেটি তিনি নিজেই মেরামত করেন। তার এ সফর অনলাইনে ব্যাপক ভাইরাল হয়। মক্কা পৌঁছার পর প্রচুর মানুষ তাকে দেখতে ভিড় জমায়।

তিউনিসিয়া থেকে একাধারে ১৬ দিন সাইকেল চালানোর পর তিনি সুদান পৌঁছেন। সেখানে তার সঙ্গে এক নারীর সাক্ষাৎ হয়। ওই নারী তার সঙ্গে ২০০ কিলোমিটার পথ ভ্রমণ করেন। যাত্রাপথে সারা অনেক মানুষের সহযোগিতা পেয়েছেন। আল্লাহর ঘরের মেহমান হচ্ছি জেনে অনেকেই শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছেন, দোয়া দিয়েছেন, নানাভাবে সাহায্য করেছেন।

মক্কায় আসার আগে তিনি মদিনায় হজরত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের রওজা জিয়ারত করে এসেছেন। ওমরাহ পালন শেষে তিনি আকাশ পথে তিউনিসিয়া ফিরে যাবেন।

আল আরাবিয়ার খবরে বলা হয়েছে, সারার আগে কোনো নারী সাইকেল চালিয়ে মক্কায় উমরা পালনের জন্য আসেননি।

অবশ্য ২০১৯ সালের হজে বৃটেন থেকে ৮ জন পুরুষ সাইক্লিস্ট হজপালনে সৌদি আরব এসেছিলেন।

চট্টলার বার্তা
চট্টলার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর