রোববার   ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১১ ১৪২৬   ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

চট্টলার বার্তা
১১

ঠোঁট কালচে হবার কারনগুলো জানেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

একজোড়া গোলাপি ঠোঁট আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে নারী ও পুরুষের। কেউ কেউ ঠোঁটের কালোভাব দূর করতে পারেন না কিছুতেই। সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে ওঠে এসেছে ঠোঁট কালো হয়ে যাওয়ার পাঁচটি কারণ।

কারণগুলো হলো— আর্দ্রতাহীন ঠোঁট, মৃত কোষ না ওঠানো, সানব্লক বাদ দেয়া, ধূমপান ও যত্নের অভাব। এই কারণগুলো যথাযথ প্রতিকার করা গেলে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

আর্দ্রতাহীন ঠোঁট-

ঠোঁটের শুষ্কতা এবং রুক্ষতার কারণে ঠোঁটের রঙে বিবর্ণভাব দেখা দেয়। সুস্থ ও গোলাপি ঠোঁটের জন্য ঠোঁটের আর্দ্রতা বজায় রাখা বেশ জরুরী। যাদের ঠোঁট শুষ্ক তারা কোকোয়া বাটার, শিয়া বাটার ইত্যাদি উপাদান সমৃদ্ধ লমবাম ব্যবহার করতে পারেন।

মৃত কোষ না ওঠানো-

ঠোঁটের চামড়া বেশ পাতলা হয়ে থাকে। আর তাই ঠোঁটে মরা চামড়া সৃষ্টি হলে ঠোঁটের রঙ কালো হয়ে যায়। স্ক্রাব করার মাধ্যমে ঠোঁটের মৃত কোষগুলো ওঠিয়ে ফেললে ঠোঁট সতেজ হয় সে সাথে কালচেভাবও কমে যায়।

সানব্লক না দেয়া-

মুখের মতো ঠোঁটও রোদে পুড়ে। তাই সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি থেকে ঠোঁট রক্ষা করতে বাইরে যাওয়ার আগে এসপিএফ ৩০ সমৃদ্ধ লিপ বাম ব্যবহার করুন।

ধূমপান করা-

নিয়মিত ধূমপান করলে ঠোঁট কালো হয়। ধূমপানের সময় নিকোটিন ঠোঁটে প্রবাহিত হয় যা ঠোঁট কালো হয়ে যাওয়ার জন্য দায়ী।

যত্নের অভাব-

শরীরের অন্য অংশের যত্ন নিলেও ঠোঁটের যত্ন বাদ পড়ে যায় সবসময়। ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার থেকে শুরু করে এক্সফলিয়েট করা ইত্যাদি সব পরিচর্যাই ঠোঁটের জন্য আবশ্যক। ঠোঁটের সৌন্দর্য বাড়তে প্রতিদিন রাতে ঠোঁটে কাঠবাদামের তেল মালিশ করতে পারেন। নিয়মিত মালিশ করলে তা রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং দেখতে আকর্ষণীয় লাগে।

এছাড়াও ঘুমানোর আগে কয়েক ফোঁটা ঘি ঠোঁটে মালিশ করতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহারে একজোড়া গোলাপি ঠোঁট পেতে পারেন।

চট্টলার বার্তা
চট্টলার বার্তা