মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০   আষাঢ় ২২ ১৪২৭   ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

চট্টলার বার্তা
৩৮১৯

জিয়া পরিবারের গোপন নথি ফাঁস, ফেঁসে গেলেন তারেকের স্ত্রী কন্যা 

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮  

যুক্তরাজ্যে নাগরিকত্ব লাভের জন্য তারেক জিয়ার স্ত্রী ও কন্যার দুটি আবেদনে বলা হয়েছে, এই দুইজনের নামে বিভিন্ন দেশে সাত মিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি টাকায় ৭৭০ কোটি টাকা) সম্পদ রয়েছে। এই দুজনকে স্থায়ীভাবে লন্ডনে বসবাসের অনুমতি দিলে, তারা এই অর্থ ব্রিটেনে বিনিয়োগ করতে পারবে। এর ফলে ব্রিটিশ অর্থনীতি লাভবান হবে বলে আবেদনে বলা হয়েছে।

 

ব্রিটিশ ট্যাক্স অ্যাটর্নি নাইজেল পপলওয়েল জানিয়েছেন তার মক্কেলদ্বয়, বর্তমানে ব্রিটেনে রাজনৈতিক আশ্রয়ে আছেন ।  ল ফার্ম বার্জেস স্যামন এর মাধ্যমে জোবাইদা রহমান এবং জাইমা রহমান ব্রিটেনে বসবাসের আবেদন করেছেন। ওই দুটি আবেদনে বলা হয়েছে, এই দুইজনের নামে বিভিন্ন দেশে সাত মিলিয়ন পাউন্ড (বাংলাদেশি টাকায় ৭৭০ কোটি টাকা) সম্পদ রয়েছে। এই দুজনকে স্থায়ী ভাবে বসবাসের অনুমতি দিলে, তারা এই অর্থ ব্রিটেনে বিনিয়োগ করতে পারবে। এর ফলে ব্রিটিশ অর্থনীতি লাভবান হবে বলে আবেদনে বলা হয়েছে। 

 

বারজেস স্যামন ট্যাক্স ফার্ম সূত্রে বলা হয়েছে, গত ১৩ ডিসেম্বর এই দুজনের স্থায়ীভাবে ব্রিটেনে থাকার আবেদন ব্রিটিশ ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টে দেওয়া হয়েছে। 

 

ব্রিটিশ আইন অনুযায়ী, একজন বিদেশি বৈধভাবে টানা দশ বছর ব্রিটেনে বসবাস করলে তিনি স্থায়ী আবাস অধিকার লাভের জন্য আবেদন করতে পারেন। অধিকাংশ বাঙালি এই সুযোগ নিয়ে থাকে। তবে, কারও বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকলে তাঁকে এই সুযোগ দেওয়া হয় না। এরকম আবেদনে, তাঁকে ব্রিটেনের প্রতি পূর্ণ আনুগত্য স্বীকার করতে হয়।

জোবাইদা রহমান পেশায় একজন চিকিৎসক হলেও লন্ডনে গৃহিনী হিসেবে বসবাস করছেন। অন্যদিকে জাইমা রহমান লন্ডনে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে পড়াশুনা করছেন। এই দুজনই তাঁদের সম্পদ পৈতৃক এবং উত্তরাধিকার সূত্রে এবং বিনিয়োগের মাধ্যমে লভ্যাংশ বলে উল্লেখ করেছেন। 

 

তাদের আইনজীবী নাইজেল পপলওয়েল বলেছেন, ‘সাতটি দেশে জোবাইদা ও জাইমা রহমানের বিনিয়োগ আছে বলে তারা তথ্য দিয়েছেন।’ তাঁর মতে, ‘এই দুজনকে পার্মানেন্ট রেসিডেন্সি দিলে ব্রিটিশ অর্থনীতি মজবুত হবে।’

 

উল্লেখ্য, ‘বিদেশে জিয়া পরিবারের কোনো অবৈধ সম্পদ নেই বলে বিএনপি নেতৃবৃন্দ দাবি করছেন। এখন ব্রিটেনে জমা দেওয়া ডকুমেন্টে জিয়া পরিবারের দুই সদস্য ৭৭০ কোটি টাকার সম্পদের কথা স্বীকার করলো।

চট্টলার বার্তা
চট্টলার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর