শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০   চৈত্র ২০ ১৪২৬   ০৯ শা'বান ১৪৪১

চট্টলার বার্তা

করোনা: বিনামূল্যে চাল দিচ্ছেন গাঙ্গুলী

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০  

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে পুরো বিশ্বেই এখন ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। পাশের দেশ ভারতে এই ভাইরাসের কারণে স্থবির হয়ে পড়েছে মানুষের জনজীবন। সংক্রমণ রুখতে দেশটিতে ২১ দিন লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই নিম্ন আয়ের মানুষদের জন্য এ এক কঠিন সময়। 

এই কঠিন সময়ে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী। প্রথমে করোনার প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় বিখ্যাত ক্রিকেট স্টেডিয়াম ইডেন গার্ডেনসকে কোয়ারেন্টিনের কাজে ব্যবহার করার প্রস্তাব দেন তিনি। এবার অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারগুলোর মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার দায়িত্বও নিজের কাঁধে তুলে নিলেন 'দাদা'।

একটি চাল প্রস্তুতকারী কোম্পানিকে সঙ্গে নিয়ে দরিদ্র পরিবারগুলোর মাঝে ভারতীয় মুদ্রায় ৫০ লাখ রুপি (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫৫ লাখ টাকা) সমমূল্যের চাল বিতরণ করছেন 'প্রিন্স অব কলকাতা'। মূলত করোনা মোকাবিলায় যেসব দরিদ্র পরিবারগুলোকে এই মুহূর্তে বিভিন্ন সরকারি স্কুল কিংবা কলেজে রাখা হয়েছে, তাদের কাছেই চাল পৌঁছে দেওয়া হবে। এক বিবৃতিতে এই কথা জানিয়েছে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল (সিএবি)।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার যদি কখনো চায় তাহলে কলকাতার বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনস স্টেডিয়ামের ইনডোর ফ্যাসিলিটি ও খেলোয়াড়দের ডরমেটরিকে কোয়ারেন্টিন সুবিধা হিসেবে ব্যবহারের অনুমতি দিতে রাজি আছেন বলে জানান গাঙ্গুলী।

বার্তা সংস্থা 'পিটিআই'কে গাঙ্গুলী বলেন, 'যদি সরকার চায়, আমরা অবশ্যই পরিকাঠামো হস্তান্তর করব। যেকোনো মুহূর্তে যেকোনো প্রয়োজনে আমরা কাজ করব। কোনো সমস্যা নেই।'

ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়ানোর পর এই প্রাদুর্ভাবে লাগাম টেনে ধরতে পুরো দেশ ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এর আগে করোনা রোধে পুরো পশ্চিমবঙ্গ লকডাউনের নির্দেশ দেয় রাজ্য সরকার। এরপর কলকাতা শহরের ফাঁকা রাস্তাঘাট দেখে টুইটারে এ নিয়ে গাঙ্গুলী লেখেন, 'কখনো ভাবিনি আমার শহর এমন দেখব...সবাই সাবধানে থাকবেন... এই পরিস্থিতির অবশ্যই উন্নতি হবে... সবার জন্য ভালোবাসা...।'

পুরো ভারতে এখন পর্যন্ত ৬০৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ১৪ জন। এদিকে পুরো বিশ্বে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৩৯ হাজার ৬৫৪ জন। মৃত্যুর সংখ্যা ১৯ হাজার ৭৪৪।

চট্টলার বার্তা
চট্টলার বার্তা
এই বিভাগের আরো খবর